Categories
সৌন্দর্য্য

বাড়িতে অ্যালোভেরা জেল তৈরির নিয়ম

অ্যালোভেরা বা ঘৃতকুমারী প্রায় সবার পরিচিত একটি উদ্ভিদ।অধিকাংশের বাড়িতে এই গাছ লাগানো থাকে।এই অ্যালোভেরার রয়েছে বহু গুনাগুন।আদিকাল থেকে রূপচর্চা থেকে শুরু করে নানান কাজে এর ব্যবহার হয়ে আসছে।এটি পেটের পীড়া,চুলের যত্ন,ত্বকের যত্ন সহ আরো অনেক কাজে ব্যবহার হয়।এর উপকারিতা বলে শেষ হওয়ার নয়।তবে আজ আমরা সেসব দিকে না গিয়ে এই অ্যালোভেরা দিয়ে কি করে জেল তৈরি করা যায় সেই বিষয়ে জানবো।

সৌন্দর্য হলো সত্যের হাসি যখন মেয়েটি তার নিজের চেহারা নিখুঁত কোন আয়নায় লক্ষ্য করে।– রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর


বাজারে অনেক ধরনের অ্যালোভেরা জেল কিনতে পাওয়া যায়।তবে সেসব এ থাকে নানান ধরনের রাসায়নিক পদার্থ।যা আমাদের ত্বকের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর।কেমন হয় যদি বাড়িতে বসে নির্ভেজাল অ্যালোভেরা জেল বানানো যায়। যেটি আপনি সারামাস ধরে আপনার ত্বকের যত্নে নিশ্চিন্তে ব্যাবহার করতে পারবেন ।তাহলে দেখে নেয়া যাক কি করে আমরা বাড়িতে নির্ভেজাল অ্যালোভেরা জেল বানিয়ে নিতে পারি।

অ্যালোভেরা জেল তৈরি করতে যা যা প্রয়োজন-


১. ছুরি
২. কাঁচের পাত্র
৩. ফ্রেশ অ্যালোভেরা পাতা
৪. মিক্সিং বোল
৫. ভিটামিন ই ক্যাপসুলন
৬. গোলাপজল
৭.চামচ

বানানোর পদ্ধতি-


প্রথমে একটি ফ্রেশ অ্যালোভেরা পাতা কেটে নিন গাছ থেকে।১/২ ঘন্টা রেখে দিন এর ভিতর থেকে হলুদ কষ গুলো বের হতে।এইগুলো আমাদের স্কিনের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর।এরপর ভালো করে পাতাটাকে ধুঁয়ে নিন।পাতার দুইপাশ থেকে ছুরির সাহায্য কেটে নিন।উপরের চামড়াটাও পাতলা করে কেটে নিন।একটা চামচের সাহায্য জেলটুকু ছাড়িয়ে নিন।সবটুকু জেল একসাথে বাল্যান্ডারে ব্লেন্ড করে নিন।বাসায় বাল্যান্ডার না থাকলে ছুরি বা চামচের সাহায্য ও পাতলা জেল করে নিতে পারেন।তবে সেটি কিছুটা কষ্টসাধ্য বটে।ব্লেন্ড করা শেষ মীক্সিং বোলে নিয়ে এর সাথে পরিমান মতো ভিটামিন ই ক্যাপসুল ও গোলাপ জল মেশান।ভালোভাবে মিক্স করে একটা কাঁচের পাত্রে নিন।এরপর এটি তিনদিনের জন্য ফ্রিজে রেখে দিন সেট হতে।ব্যাস রেডি হয়ে গেলো বাসায় তৈরি খাঁটি অ্যালোভেরা জেল।এইবার এটি আপনার প্রয়োজন মতো রূপচর্চার কাজে ব্যবহার করুন।এটি আপনি ফ্রিজে রেখে প্রায় একমাস ব্যাবহার করতে পারবেন।

এলোভেরা জেল অনেকে অনেক পদ্ধতিতে করলেও আমার কাছে এটি সহজ ও ঝামেলাবিহীন মনে হয়।সময়ও অনেক কম লাগে।তাই এখন থেকে আপনিও একবার এই প্রসেসে বানিয়ে দেখুন।আশাকরি নিরাশ হবেন না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *